শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০১:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তাকে বার বার হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে: আব্দুল হাই সরকার নানা রকম ছলচাতুরি করে ষড়যন্ত্র করছে: জোনায়েদ সাকী পুলিশের উপর হামলার মামলা: গিয়াস উদ্দিনের জামিন না মঞ্জুর আজ শিক্ষকরা ছাত্রদের শাসন করতে ভয় পায়: অতি. পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগে মাত্র ২৩৫ টাকায় নিয়োগ পেলেন ৮৪ জন আমি বলছি না আমাদের কোথায়ও কোনো ত্রুটি নেই: ভূমিমন্ত্রী আড়াইহাজারে নির্বাচনে প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার পরিবর্তনে নির্বাচন কমিশনে আবেদন অপহৃত দুই মোটর মেকানিক উদ্ধার: ৪ অপহরণকারী গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জ নিউজ পেপার ওনার্স এসোসিয়েশনের ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত এ্যাম্বুলেন্সের অক্সিজেন সিলিন্ডারে ২ কোটি টাকার ইয়াবা

সোনারগাঁয়ে ছুরিকাঘাতে আহত দুলাল, ৩দিন পর নিহত

সোনারগাঁ প্রতিনিধি
  • Update Time : শনিবার, ৭ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৩ Time View
Lash. লাশ সোনারগাঁয়ে ছুরিকাঘাতে আহত দুলাল, ৩দিন পর নিহত

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়িমজলিশ এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের ধারালো আগ্নেয়াস্ত্রের আঘাতে মারাত্মক আহত ব্যবসায়ী দুলাল মিয়া (৫০) মারা গেছেন। পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নারী-ভুড়ি ক্ষতবিক্ষত করে ফেলা হয়। মৃত্যু যন্ত্রনায় কাতরিয়ে তিনদিনের মাথায় শুক্রবার (৬ অক্টোবর) রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে এলাকায়। নিহত দুলাল মিয়া মোগরাপাড়া ইউনিয়নের হাবিবপুর গ্রামের মৃত শাহজাহান ওরফে ডেঙ্গর আলীর ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবারের তথ্যমতে, গত ৩ অক্টোবর সকালে জমি সংক্রান্তবিরোধের জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ব্যবসায়ীক কাজের কথা বলে নিহত দুলালের বড় ভাই ফজল মিয়াকে ডেকে নিয়ে মারধর করতে থাকে প্রতিপক্ষরা। ফজলকে মারধরের খবর শুনে ফজল মিয়ার পুত্র ইয়াছিন হোসাইন নির্ঝর ও ছোট ভাই মো. দুলাল মিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে দুলাল মিয়াকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে নাড়িভুঁড়ি বের করে রক্তাক্ত জখম করে। ফজল মিয়াকেও ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করলে তিনি বাম হাত দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করলে তাঁর বাম হাতের কব্জি কেটে রক্তাক্ত জখম হয়। এসময় তাদের ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা চলে যায়। পরে এলাকার লোকজন আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কর্তব্যরত ডাক্তার দুলাল মিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে ৩ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পরে শুক্রবার (৬ অক্টোবর) রাতে মারা যান আহত দুলাল মিয়া।

ওই হামলার ঘটনায় ৪ অক্টোবর আহতের ভাতিজা ইয়াছিন হোসাইন নির্ঝর বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় রাজ্জাক, জামান, মেহেদি, মহসীন, ইমদাদ হোসেন, শামীম, সজিব, শাহ আলমসহ আরও ১০-১৫ জন অজ্ঞাতনামাকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে সোনারগাঁ থানার এসআই মো. ইমরান হোসেন এজাহারভুক্ত আসামী আরমানকে (৪৩) ও সন্দেহভাজন হিসেবে ইমদাদ হোসেন (৫৫)কে গ্রেপ্তার করে। কিন্তু কোন রিমান্ড আবেদন না করে পুলিশ তাদের আদালতে পাঠায়। ফলে ইমরান পরদিন জামিনে বেরিয়ে আসে। এছাড়া মামলার বাকী ৭ আসামীকে গ্রেপ্তারে পুলিশ কোনপ্রকার তৎপরতা দেখাচ্ছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আহসান উল্লাহ জানান, শুক্রবার রাতে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত ব্যবসায়ী দুলাল মিয়া মারা গেছেন। এ ঘটনায় পূর্বের দায়েরকৃত মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Translate »