শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১২:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তাকে বার বার হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে: আব্দুল হাই সরকার নানা রকম ছলচাতুরি করে ষড়যন্ত্র করছে: জোনায়েদ সাকী পুলিশের উপর হামলার মামলা: গিয়াস উদ্দিনের জামিন না মঞ্জুর আজ শিক্ষকরা ছাত্রদের শাসন করতে ভয় পায়: অতি. পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগে মাত্র ২৩৫ টাকায় নিয়োগ পেলেন ৮৪ জন আমি বলছি না আমাদের কোথায়ও কোনো ত্রুটি নেই: ভূমিমন্ত্রী আড়াইহাজারে নির্বাচনে প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার পরিবর্তনে নির্বাচন কমিশনে আবেদন অপহৃত দুই মোটর মেকানিক উদ্ধার: ৪ অপহরণকারী গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জ নিউজ পেপার ওনার্স এসোসিয়েশনের ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত এ্যাম্বুলেন্সের অক্সিজেন সিলিন্ডারে ২ কোটি টাকার ইয়াবা

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের আদমজী ইপিজেডের কারখানা পরিদর্শন

স্টাফ রিপোর্টার
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ১২৮ Time View
garments 2312281321 মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের আদমজী ইপিজেডের কারখানা পরিদর্শন

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘গার্মেন্টস সেক্টর বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ একটি সেক্টর৷ এই সেক্টরের শ্রমিকদের সঠিক কর্মপরিবেশ নিশ্চিতে কাজ করছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন৷ সুুন্দর কর্মপরিবেশে কর্মীরা তাদের শ্রমের বিনিময়ে সঠিক মজুরি পেলে আমরা গর্ব করে বলতে পারবো যে আমরা শ্রমের সঠিক মূল্যায়ন করি৷ যাতে অন্যায়ভাবে কেউ আমাদের কোন কথা বলতে না পারে৷’

বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে ইপিজেডে উর্মি গ্রুপের ইউএইচএম লিমিটেড নামে কারখানা পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি৷

এ সময় কারখানাটিতে কর্মরত শ্রমিকদের সাথে কথা বলেন কমিশনের চেয়ারম্যান৷ তিনি শ্রমিকদের কর্মপরিবেশের পাশাপাশি কারখানাটির ক্যান্টিন, মেডিকেল সেন্টার, চাইল্ড কেয়ার কক্ষ ঘুরে দেখেন৷ জানতে চান, শ্রমিকরা পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন কিনা, নতুন নির্ধারিত মজুরি নিয়ে তাদের কোন আপত্তি আছে কিনা৷

পরে কমিশনের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘মানুষের অধিকার নিয়ে কাজ করে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন৷ মানুষের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য বিভিন্ন ক্ষেত্রে আমরা কাজ করি৷ গার্মেন্টস সেক্টর আমাদের জন্য একটি গর্বের সেক্টর৷ কারণ বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জনে এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি সেক্টর৷ শ্রমিক ভাই-বোনেরা দিন-রাত পরিশ্রম করে যে পোশাক তৈরি করছে তা বিদেশে যাচ্ছে, বদলে আমরা বৈদেশিক মুদ্রা পাচ্ছি৷ যারা এ কাজগুলো করছে তারা প্রকৃতপক্ষেই তাদের শ্রমের স্বীকৃতি পাচ্ছে কিনা, তাদের কল্যাণের বিষয়টি দেখা হচ্ছে কিনা, কর্মস্থলে সুযোগ-সুবিধা পর্যাপ্ত আছে কিনা সেটাই আমাদের দেখার বিষয় ছিল৷’

তিনি বলেন, ‘কারখানাটিতে শ্রমিকদের সাথে আমার কথা হয়েছে৷ তারা সময়মতো বেতন ও পর্যাপ্ত সুবিধা পাচ্ছে বলে জানিয়েছেন৷ আমরা আশা করি, আমাদের গর্বের গার্মেন্টস সেক্টরে সুন্দর কর্মপরিবেশ বিরাজ করুক, শ্রমিকদের অধিকারগুলো যেন পরিপূর্ণ থাকে৷’

এক প্রশ্নের জবাবে কামাল উদ্দিন বলেন, ‘কারখানার পরিবেশ এক না, এর সাথে আমরা একমত৷ সেটা দেখার জন্য অন্যান্য কারখানাগুলোর কর্মপরিবেশ দেখতে গিয়েছি, ভালো পরিবেশ পেয়েছি৷ আমরা আরও যাবো, আমরা শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিতে কাজ করবো৷’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সার্বক্ষণিক সদস্য সেলিম রেজা, শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহা. আসাদুজ্জামান, শিল্প পুলিশ নারায়ণগঞ্জ-৪ এর পুলিশ সুপার শারমিন আক্তার, ইউএইচএম লিমিটেড কারখানার সহকারী মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আশিফুল কবির৷

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Translate »