বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আমাদের সমাজে ভালো মানুষের খুব অভাব : সিভিল সার্জন ডাকাতি করতে গিয়ে কিশোরীকে গণধর্ষণ: অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ৪ আদমজী ব্লাড ডোনার্স গ্রুপের রক্ত দান কর্মসূচী ও চতুর্থ বর্ষপূর্তি উদযাপন ট্রাক চাপায় আড়াইহাজার পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান নিহত: সড়ক অবরোধ ছাত্র ফেডারেশন নারায়ণগঞ্জ ৮ম জেলা কমিটির যাত্রা শুরু তাকে বার বার হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে: আব্দুল হাই সরকার নানা রকম ছলচাতুরি করে ষড়যন্ত্র করছে: জোনায়েদ সাকী পুলিশের উপর হামলার মামলা: গিয়াস উদ্দিনের জামিন না মঞ্জুর আজ শিক্ষকরা ছাত্রদের শাসন করতে ভয় পায়: অতি. পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগে মাত্র ২৩৫ টাকায় নিয়োগ পেলেন ৮৪ জন

শ্রমিকদের শান্ত থাকার আহবান: সেলিম ওসমান

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১ জুন, ২০২৩
  • ৩৯ Time View
Selim osman শ্রমিকদের শান্ত থাকার আহবান: সেলিম ওসমান

ফতুল্লা প্রতিনিধি

ফতুল্লায় টি শাটে ব্যাঙ্গাত্মক ছবি প্রিন্ট করা নিয়ে যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে সেখানে শ্রমিকদের শান্ত থাকার উদাত্ত আহবান রেখেছেন গার্মেন্ট মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএ এর সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমান।

তিনি বলেছেন, ‘এটি একটি অনাকাংঙ্খিত ঘটনা এবং এর জন্য সংশ্লিষ্ট ওই গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ দায়ী। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেহেতু আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা বা উস্কানিতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি থেকে শ্রমিকদের বিরত থাকতে হবে।’ গতকাল বুধবার রাতে বিবৃতিতে এ কথা জানিয়ে শ্রমিকদের এ স্মরণ করিয়ে দেন তিনি, এম্নিতেই নানা কারণে গার্মেন্ট শিল্প সংকটে আছে। যে প্রিন্ট হয়েছে গেঞ্জিতে সেটা অবশ্যই একটি গর্হিত কাজ এবং এটাকে কোনভাবেই সমর্থনযোগ্য না। কারখানা যারা পরিচালনা করে তাঁরা যাচাই বাছাই না করায় আমাদের মুসলমান সমাজকে আঘাত করেছে। এটা শাস্তিযোগ্য অপরাধও বটে। এরই মধ্যে আমি পুলিশ সুপার সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করেছি আইনগত ব্যবস্থা নিতে এবং সেটা প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সুতরাং এখন আর এটাকে নিয়ে কোন ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হবে আমাদের জন্য আত্মঘাতি।

গতকাল বুধবার দুপুরে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ চতলার মাঠ এলাকায় অবস্থিত এসরোটেক্স গার্মেন্টেস এ টি শার্টে প্রথম মানব আদম হাওয়া নিয়ে ব্যঙ্গ করার মত মানহানিকর মনে হওয়ায় মালিকপক্ষের কাছে আপত্তি জানায় শ্রমিকেরা। মালিকপক্ষ শ্রমিকদের আপত্তি আমলে না নিয়ে অর্ডারের বাকি কাজ শেষ করার নির্দেশ দেয়। শ্রমিকেরা মালিক পক্ষের নির্দেশ না মেনে কাজ বন্ধ করে বের হয়ে আসে। এরপর গার্মেন্টসের কয়েকশত শ্রমিক বিক্ষোভ করতে থাকেন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে শ্রমিকদের অভিযোগ শুনে মালিকপক্ষের সাথে আলোচনা করেন। দীর্ঘ আলোচনায় মালিকপক্ষের লোকজন আপত্তিকর ছবি টি-শার্টে প্রিন্ট করায় ভুল স্বীকার করেন। এরপর প্রকাশ্যে শ্রমিকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে ১৭৫০ পিছ টি শার্ট পুলিশের উপস্থিতিতে আগুনে পুড়িয়ে ফেললে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

সেলিম ওসমান বলেন, ‘একটি কারখানার সূত্র ধরে আরো কয়েকটি কারখানাতে হামলার ঘটনা ঘটেছে যা অনাকাংঙ্খিত। আমাদের গার্মেন্ট সেক্টরে একটি শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। যারা অন্যায় করেছে তাদের শাস্তি হবে। তাই বলে অন্য কারখানায় হামলা করাটা সমুচীন না। তিনি আরো বলেন, বিকেএমইএ ইতোমধ্যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছে। এ সংগঠনের মাধ্যমেও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের কাছে কৈফিয়ত চাওয়া হবে এবং বিকেএমইএও এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার নিন্দা জ্ঞাপন করে ব্যবস্থা নিবে।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Translate »