শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১২:৪৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তাকে বার বার হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে: আব্দুল হাই সরকার নানা রকম ছলচাতুরি করে ষড়যন্ত্র করছে: জোনায়েদ সাকী পুলিশের উপর হামলার মামলা: গিয়াস উদ্দিনের জামিন না মঞ্জুর আজ শিক্ষকরা ছাত্রদের শাসন করতে ভয় পায়: অতি. পুলিশ সুপার নারায়ণগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগে মাত্র ২৩৫ টাকায় নিয়োগ পেলেন ৮৪ জন আমি বলছি না আমাদের কোথায়ও কোনো ত্রুটি নেই: ভূমিমন্ত্রী আড়াইহাজারে নির্বাচনে প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসার পরিবর্তনে নির্বাচন কমিশনে আবেদন অপহৃত দুই মোটর মেকানিক উদ্ধার: ৪ অপহরণকারী গ্রেপ্তার নারায়ণগঞ্জ নিউজ পেপার ওনার্স এসোসিয়েশনের ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত এ্যাম্বুলেন্সের অক্সিজেন সিলিন্ডারে ২ কোটি টাকার ইয়াবা

বটি দিয়ে কুপিয়ে মাকে খুন, ছেলে গ্রেপ্তার

ফতুল্লা প্রতিনিধি
  • Update Time : শুক্রবার, ৩ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৭ Time View
Murder 750x445 gatok বটি দিয়ে কুপিয়ে মাকে খুন, ছেলে গ্রেপ্তার

ফতুল্লায় মাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরস্থ রেলষ্টেশন উকিলবাড়ি এলাকায় সড়কে ওই ঘটনা ঘটেছে। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) নূরে আজম মিয়া।

নিহত মায়ের নাম মধুমালা বেগম (৫৫)। আর ঘাতক ছেলের নাম সুমন মিয়া (৩৫)। এ ঘটনায় নিহত মধুমালার স্বামী নুরুল ইসলাম থানায় অভিযোগ করার পর পুলিশ সুমনকে ধারালো বটিসহ গ্রেপ্তার করেছে।

ঘটনার প্রতক্ষদর্শীরা জানায়, রাত সাড়ে বারোটার চিৎকার শুনে ঘর থেকে বের হয়ে দেখতে পান রাস্তায় পরে রক্তাক্ত এক মহিলা। পাশেই দাড়িয়ে আছে এক যুবক ও এক পুরুষ। সামনে গিয়ে তাদের কে তিনি চিনতে পারেন। তখন দেখেন রাস্তায় পরে থাকা মহিলাটি হলো মধুমালা বেগম আর দা হাতে দাড়িয়ে আছে তারই ছেলে আর পাশে দাড়ানো পুরুষটি হচ্ছে মধুমালার স্বামী। ছেলেটি মাদকাসক্ত ছিলো।
Ma বটি দিয়ে কুপিয়ে মাকে খুন, ছেলে গ্রেপ্তার
নিহতের স্বামী নুরুল ইসলাম জানান, পরিবার নিয়ে ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর রেলষ্টেশন উকিল বাড়ি মোড় এলাকায় কামরুন নাহারের বাড়িতে ভাড়া থাকি। বাড়ির কাছে আমার ভাতের হোটেল আছে। আমরা স্বামী-স্ত্রী ওই হোটেল চালাই। আমার দুই ছেলে দুই মেয়ের মধ্যে সুমন দ্বিতীয় সন্তান। মানষিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় সুমনকে তার স্ত্রী তালাক দিয়ে দুই কন্যা সন্তানসহ বাবার বাড়ি চলে যায়। এরপর ৬বছর আগে সুমনকে বিদেশে (ইরাক) পাঠানো হয়। সেখানে দুই মাস থেকে দেশে চলে আসছে। রাতে হোটেল থেকে বাসায় ফেরার পথে দেখতে পায় সুমন ঘর থেকে বটি নিয়ে এসে রাস্তায় তার মাকে এলোপাথারী কুপিয়ে মুখ, হাত ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেছে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এরপর সুমন বটি হাতে নিয়ে ঘরে গিয়ে খাটে শুয়ে ছিলো। খবর পেয়ে থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ এসে সুমনকে ঘর থেকে বটিসহ গ্রেফতার করে এবং তার মায়ের লাশ ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) নূরে আজম মিয়া বলেন, মাকে খুনের অভিযোগে ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে ছেলেকে ভারসাম্যহীন বলা হচ্ছে। এখনো মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহরের ভিক্টোরীয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Translate »